নাম ফাটপার গেনু



রকিবুল হাসান গোলজার
মোক চেনেন না বাহে ? 
মোর বাড়ী থেতরাইত! উলিপুর হাটের পশ্চিমত, তিস্তা নদীর উপরত, টোপের বাজারের ছড়ার গড়ত, নতুন থেতরাই বাজারত, বোড ঘরের পিছনত, দড়িকিশোর পুর গ্রামত। মোর বাপ মাস্টার আছিল , মাদ্রাসা পড়ছিলো সেই জন্যে তাক  অশীদ মলবী করি ডাকায়, তারে বড় ব্যাটা মুই বাহে! 

মুই পড়ছিনু হামার উলিপুর কলেজত ঐ যে বাহে যে বার বড়বান হঅইল আটাশি সালত সেইবার বাহে বি.ও পরীক্ষার সেন্টার হামার কলেজত । সবাই কি এ্যাহেবারে খুশি । কুড়িগ্রামত থাকি আসিল বড় ছারেরা কি জানি হঅইল বাহে! কলেজের পুকুরত কি চুগবা চুগবি! বি.ও পরীক্ষা হঅইল বাতিল। আইলো মোর আইও পরীক্ষা, একদিনে বাহে মেলা এসফেল ! মুইও পাশ দিবার পানু না, গেনু কাউনিয়া কলেজত কত কষ্ট করি দিনু বি.ও পাশ। 

হঅয় মাষ্টার ঐ যে কাজির মজজিদত ছিন্নি মানেন ঐখানত মোর হিস্কুলটা যাক হক্কলে বুড়ীর ভিটা কঅয় । আরে বাহে তোমরা গুলা তো সবাই কন “যার নাই কোন গতি তাআই করে পন্ডিতি” হনু অইদান জোড়া তালির মাষ্টার বাহে। একদিন পড়বার গেনু “কপোতাক্ষ নদ” একনা  ছাত্রী জাইনবার চাইল ছ্যার সনেট কি? মুই তো ভাল বোঝো না হঅইল পায়জামা নষ্ট কনু জরিনা মুইও তো ভালো বোঝো না কাইল কইম। আর এই সনেট বুঝবার যায়া বাহে নেকনু সনেট কবিতা হনু সনেট কবি, যাআই দ্যাখে তাআই কইল ভালো, কইরবার গেনু বই বাইর, প্রকাশকেরা নিল সউগ খরছ।

 দ্যাকনু মোর ন্যাহান কত কবি সগগ্যাই  ট্যাকা দ্যাইল মুইও দিনু। কদ্দিন বাদে গেনু একুশত বই মেলাত। দ্যাখো অমরা দ্যাখনিয়াল  দুক্যনা এ্যাকনা বড় ছাওয়ালোক দোকানোত বসে থুঅইছে মোর ন্যাহান পাগলা যায়া দ্যাকে উয়ার বই দোকানোত কি খুশি ফোন করি কবার নাইগচে দোস্তরে মোর বই বাড়াইচে।

 পরদ্দিন যায়া দ্যাকো দোকানোতে মোর বই নাই আর যে বইগুলা মোকদিল মোর যে দোসরা আসি কয় দোস তোর কি? অন্যায় কচ্ছ মোর সোজন্যে বই দিলু না! এদোন করি বই ন্যাকো আর ছাপাও আর বিলি দ্যাও, গেইল গা*ড় ফাঁটি, হনু মোর মাইয়া ছাওয়ার গাইলের মতুয়া । আর ওমরা এ্যাদোন করি ছাপায় আর ট্যাকা নেয়। কাইও লাভের আশায় নেকেন না নেকলে ভুল করবেন। প্রকাশক আর সাংবাদিক এ্যামরা বাহে কাইও কাইও সাংঘাতিক। হামার ন্যাহান মনের খায়েস অ্যালা নোককে কাজত নাগয়া নাব করে।

Post a Comment

Previous Post Next Post