একশো লেখাইয়ার একশো রাজবংশী গল্প'র বাদে গপ্পো চায়


মানী লেখাইয়ারঘর, 
এবার কুচবিহার বইমেলাত হামরা "একশো কবির ১০০ রাজবংশী কবিতা " বইখান তোমাল্লার আশুরবাদ নিয়া বির করিছি। আর কয়মাস বাদে হামরা "একশো লেখাইয়ার একশো রাজবংশী গল্প " নামের এখান গল্পের বই নিকলিবার মনস্থ করছি। তোমরা সগায় নিজের নিজের লেখা সেরা গল্প দিয়া আমাল্লাক সাহাইয্য সহযুগিতা করিবেন এই আটুশ থাকিল। 

গপ্প/গল্প পাঠেবার ব্যাপারে সামাইন্য নিয়মকানুন নামাত জানে দেওয়া হইল।  


নিয়মকাননঃ- 
১। গপ্প/গল্প ৫০০-৫৫০ শব্দের মইধ্যে হওয়া খাইবে। লেখা খমকায় নিজের লেখা হওয়া চাই। আগত কোনোটে নিকলা লেখা একদমেয় চইলবে না। 

২। লেখা হোয়াটসঅ্যাপত টাইপ করি পাঠা খাইবে। নামার যে কোনো একটা নম্বরত পাঠাইলেয় হইবে- ৭৬০২৭৬২৪৮৮/ ৯৫৯৩৭৩৮৬৪৮/৮৬১৭৬৬৩৫৭৬
লেখার সময় বানান, যতি চিহ্ন, অনুচ্ছেদ এইলার বিষয়ে তীক্ষ্ণ নজর রাখা খাইবে। 

৩। লেখা দিবার শ্যাষ কড়াল-- ৩১শে মার্চ '২০২২ইং (১৬ য় চৈত '১৪২৮ সন), রাত্তি-১২টা অবধি। 

৪। লেখা দিলেয় যে ছাপা হবে, এমনটা ভাবার কোনয় কারণ নাই । লেখার মান অনুযায়ী লেখা বইয়ত থান পাইবে। এই ব্যাপারে মাড়েয়ার ঘরের সিদ্ধান্তয় চূড়ান্ত বুলিয়া গইণ্য হইবে। 

৫। লেখা দিলে, ৩০শে এপ্রিল '২০২২ অব্দি ঐ লেখাটাক অইন্য কোনোটে দেওয়া যাইবে না, সেলেকশন হওয়া না হওয়া বিষয়ে অপেক্ষা করা খাইবে। লেখা সেলেকশন হইলে- WhatsAppত জানে দেওয়া হইবে।

৬। লেখার সোদে একসাথেয় "লেখাইয়ার নাম, ঠিকনা, মোবাইল নম্বার(ঝেটাত হোয়াটসঅ্যাপ আছে"),ই-মেইল নম্বার (যেদু থাকি থাকে) এইলা টাইপ করি দেওয়া খাইবে। আলদা করি দিলে হইবে না। 

৮। আর এখনা কথা, যেদুও পাছের ,তাও আগতে কওয়ায় ভাল। ক্যানে না -পাছৎ ব্যাজরাবেজরি হওয়াটা ভাল নোংয়ায়। কথাটা হইল- নেখাইয়াক কোনয় সৈজন্য সইংখ্যা দেওয়া যাইবে না। বই নিলে পাইসা দিয়ায় নেওয়া খাইবে। বইয়ের দরদাম সমায় মতন জানে দেওয়া হইবে। তবে বই নেওয়াটা বাইধ্যতামূলক না হয়। 

ধইন্যবাদের শ্যাষত,
 মাড়েয়ার ঘর
 "একশো লেখাইয়ার একশো রাজবংশী গল্প "

হামার বাও // জরীফ

Post a Comment

Previous Post Next Post